1. imran.vusc@gmail.com : প্রিয়আলো ডেস্ক : প্রিয়আলো ডেস্ক
  2. m.editor.priyoalo@gmail.com : Farhadul Islam : Farhadul Islam
  3. priyoalo@gmail.com : প্রিয়আলো ডেস্ক :
  4. imran.vus@gmail.com : Sabana Akter : Sabana Akter
লিফটে মারধরের ঘটনায় সেই কর্মকর্তা বরখাস্ত - প্রিয় আলো

লিফটে মারধরের ঘটনায় সেই কর্মকর্তা বরখাস্ত

  • আপডেট সময় বুধবার, ১৯ জুন, ২০২৪
  • ৬৬
Img 20240619 225139

রাজধানীর পরীবাগ এলাকায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী বাসার লিফটে মারধরের ঘটনা বেশ আলোচিত হয়। এই ঘটনার কয়েকদিন পর প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা (লিড, ডেপুটেশন অ্যান্ড ট্রেনিং রিজার্ভ) মো. আজিজুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

বুধবার (১৯ জুন) মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে সচিব সাঈদ মাহমুদ বেলাল হায়দরের জারি করা প্রজ্ঞাপনে বিষয়টি প্রকাশ করা হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের ঢাকায় ডেপুটেশনে কর্মরত জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. আজিজুল ইসলামকে (লিভ, ডেপুটেশন অ্যান্ড ট্রেনিং রিজার্ভ পদ) সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮ এর বিধি অনুযায়ী, বুধবার (১৯ জুন) থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো।

জনস্বার্থে জারি করা এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে বলেও জানানো হয়।

আজিজুল ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগ গত ১৩ জুন রাজধানীর পরীবাগ এলাকার দিগন্ত টাওয়ারে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী মো. আবদুর রহমানের বাসার লিফটে প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের কর্মকর্তা মলয় কুমার শূরকে মারধর করেন। অভিযোগ ওঠার পর কর্মকর্তার নতুন পদায়ন বাতিল করা হয়। এ ঘটনায় প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের পরিচালক (প্রশাসন) ভুক্তভোগী কর্মকর্তা মলয় কুমার শূর শাহবাগ থানায় হত্যাচেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন তার বিরুদ্ধে।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, প্রশাসনিক বিষয়ে দিকনির্দেশনার জন্য প্রাণিসম্পদমন্ত্রী তার বাসভবন দিগন্ত টাওয়ারে মলয় কুমারকে আসতে বলেছিলেন। পরে বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৮টার সময় মন্ত্রীর বাসায় যান তিনি। কাজ শেষে সোয়া ৯টার দিকে টাওয়ারের লিফটে নিচতলায় নামেন। লিফটের সামনে আজিজুল ইসলাম আগে থেকেই ভারী কোনো বস্তু নিয়ে অবস্থান করছিলেন। লিফটের দরজা খোলার সঙ্গে সঙ্গে মলয় কুমারকে ধাক্কা দিয়ে লিফটের ভেতর ফেলে দেন তিনি। হত্যার উদ্দেশ্যে মাথা ও নাকে আঘাত করে জখম করেন। মলয় কুমার চিৎকার করলে নিরাপত্তাপ্রহরীরা এগিয়ে আসেন। তখন ভয়ভীতি দেখিয়ে ও জীবননাশের হুমকি দিয়ে পালিয়ে যান আজিজুল। এরপর মলয়কে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। তার মুখমণ্ডল ফেটে যাওয়ায় সেলাই দিতে হয়েছে। এ ছাড়া বুক ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয়েছে। হামলার কারণ হিসেবে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার আজিজুল ইসলামকে মন্ত্রণালয়ের পরিচালক পদমর্যাদার একটি পদে পদায়ন করা হয়। মলয় কুমার প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) তাই এ বিষয়ে মন্ত্রীকে মতামত দিয়েছিলেন। বিভাগীয় মামলায় শাস্তিপ্রাপ্ত অবস্থায় আজিজুলের নতুন পদায়ন হয়। আইন অনুযায়ী তিনি বিষয়টি জানিয়েছেন। এ কারণে আজিজুল তার ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে থাকতে পারেন।

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার পদ থেকে আজিজুল ইসলামকে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের অ্যান্ডোপ্যারাসাইটোলজি অনুবিভাগের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা হিসেবে চলতি দায়িত্বে পদায়ন করেছিল। কিন্তু মলয় কুমারকে মেরে আহত করার অভিযোগ উঠলে ওই রাতেই এ পদায়ন বাতিল করে মন্ত্রণালয়।

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved priyoalo.com © 2023.
Site Customized By NewsTech.Com
x