1. citymelaltd@gmail.com : আবু হেনা : আবু হেনা
  2. foysalmahmudbd9@gmail.com : ফয়সাল মাহমুদ : ফয়সাল মাহমুদ
  3. imran.vusc@gmail.com : প্রিয়আলো ডেস্ক : প্রিয়আলো ডেস্ক
  4. kkomol296@gmail.com : kamrul Hossain : kamrul Hossain
  5. m.editor.priyoalo@gmail.com : Farhadul Islam : Farhadul Islam
  6. nurulimran26@gmail.com : নুরুল ইমরান : নুরুল ইমরান
  7. priyoalo@gmail.com : প্রিয়আলো ডেস্ক :
বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু চলচ্চিত্র উৎসব - প্রিয় আলো

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু চলচ্চিত্র উৎসব

  • আপডেট সময় সোমবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ২৫
muzib

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপনে “বঙ্গবন্ধু চলচ্চিত্র উৎসব’ এর আয়োজন করেছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি (বাচসাস)।

সোমবার বিকালে বিএফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাব মিলনায়তনে উৎসবে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক তিনটি ও বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে একটি চলচ্চিত্রসহ মোট চারটি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়। উৎসবে প্রদর্শিত চলচ্চিত্রগুলো হলো-চিরঞ্জীব মুজিব” গেরিলা, শ্যামল ছায়া ও মেঘের পরে মেঘ”।

বর্ণাঢ্য এই আয়োজনের প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

উৎসবে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন, বিএফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুজহাত ইয়াসমিন ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির মহাসচিব শাহীন সুমন।

এ সময় হাছান মাহমুদ বলেন, সিনেমা শিল্পের সুদিন ফিরে এসেছে। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়নের বিকাশ ঘটাতে শুরু থেকেই কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি (বাচসাস)।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর হাত ধরেই ১৯৫৭ সালে এই চলচ্চিত্রের যাত্রা। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বাচসাস এর এমন আয়োজন খুবই প্রাসঙ্গিক।

ড. হাছান বলেন, দেশ স্বাধীন হবার পরও স্বাধীনতা পূর্ণতা পায়নি। এটি পূর্ণতা পায় ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মধ্য দিয়ে। বঙ্গবন্ধু কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে এসে পরিবারের কাছে প্রথমে যায়নি। তিনি গেছেন জনতার কাছে। এরপর গেছেন পরিবারের কাছে। এমন একটি দিনে চলচ্চিত্র উৎসব আয়োজন করার জন্য তথ্যমন্ত্রী বাচসাসকে ধন্যবাদ জানান।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, অনেক সংকটের মধ্য দিয়ে দেশের চলচ্চিত্রশিল্প এগিয়ে যাচ্ছে। অনেক বন্ধ হল নতুন করে চালু হয়েছে। নতুন নতুন সিনেপ্লেক্স হচ্ছে। মানুষ লাইনে দাঁড়িয়ে টিকেট কিনছে।

জাতীয় প্রেসক্লাব সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ রেসকোর্স ময়দানে বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন। ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম” বঙ্গবন্ধুর এই স্লোগানে উজ্জীবিত হয়ে মুক্তির সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়ে মুক্তিযোদ্ধারা। পরবর্তীতে ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের পর বাঙালি জাতি স্বাধীনতার স্বাদ পায়। যার কারণে জাতির জীবনে ১০ জানুয়ারি অনেক তাৎপর্য বহন করে। বিএফডিসি প্রতিষ্ঠা করে বঙ্গবন্ধু এদেশের চলচ্চিত্রের বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছিলেন বলেই আমাদের চলচ্চিত্রশিল্প এতোটা সমৃদ্ধ। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজন করাতে বাচসাসকে ধন্যবাদ জানাই।

উৎসবে সভাপতিত্ব করেন বাচসাসের সভাপতি রাজু আলীম। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাচসাসের সাধারণ সম্পাদক রিমন মাহফুজ।

এই আয়োজনে রাজু আলীম পরিচালিত বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে নির্মিতব্য ‘পিতার ছবি’ চলচ্চিত্রের মহরত অনুষ্ঠিত হয়।

আইকে

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved priyoalo.com © 2022.
Site Customized By NewsTech.Com
x