1. imran.vusc@gmail.com : প্রিয়আলো ডেস্ক : প্রিয়আলো ডেস্ক
  2. m.editor.priyoalo@gmail.com : Farhadul Islam : Farhadul Islam
  3. priyoalo@gmail.com : প্রিয়আলো ডেস্ক :
  4. imran.vus@gmail.com : Sabana Akter : Sabana Akter
টুইঙ্কেলের মুখে গালি শুনে হতবাক হয়েছিলাম: ববি - প্রিয় আলো

টুইঙ্কেলের মুখে গালি শুনে হতবাক হয়েছিলাম: ববি

  • আপডেট সময় শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৫৮
Twinkel Boby 2402240203

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা ববি দেওল। ‘অ্যানিমেল’ সিনেমায় ‘জামাল কুদু’ গানে মদের গ্লাস মাথায় নিয়ে নেচে মাত করেন তিনি। এখনো সেই রেশ কাটেনি। এদিকে, অভিনয় থেকে দূরে সরে গেছেন ববির সহশিল্পী টুইঙ্কেল খান্না। সম্প্রতি পুরুষদের প্লাস্টিকের ব্যাগের সঙ্গে তুলনা করে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে এসেছেন অক্ষয় ঘরণী।

১৯৯৫ সালে ‘বারসাত’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক ঘটে টুইঙ্কেল খান্নার। সিনেমাটিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন ববি দেওল। শুটিংয়ের সময়ে টুইঙ্কেলকে দারুণভাবে বিরক্ত করতেন ববি। ২০০১ সালে ফিল্মফেয়ারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সেই গল্প শুনিয়েছিলেন। ববির সেই সাক্ষাৎকার ফের আলোচনায় উঠে এসেছে।

স্মৃতিচারণ করে ববি বলেন, ‘টিনা আর আমি শুটিং শুরুর প্রথমদিন থেকে একসঙ্গে ছিলাম। তবে সম্পর্ক মোটেই মসৃণ ছিল না। ছোট ছোট বিষয় নিয়ে তুমুল আশান্তি হতো। আমি তো টুইঙ্কেলকে প্রাতক্রিয়া থেকে শুরু করে পাকস্থলী পরিষ্কার রাখার মতো বিষয় নিয়ে কথা বলে বিরক্ত করেছি। এই কথাগুলো শুনে একেবারে তেলেবেগুনে জ্বলে উঠত টুইঙ্কেল। কিন্তু আমি এই বিষয়টা খুবই উপভোগ করেছি।’

শুটিং সেটে কথা বলতে গিয়ে মাঝে মধ্যে গালিগালাজ করতেন ববি দেওল; যা শুনে আরো রেগে যেতেন টুইঙ্কেল। কিন্তু একবার টুইঙ্কেলের মুখে গালি শুনে অবাক হন ববি।

সেই ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ববি দেওল বলেন, ‘সিনেমার প্রিমিয়ারের জন্য আমি ও টুইঙ্কেল একই গাড়িতে যাচ্ছিলাম। আমি বেশ নার্ভাস ছিলাম। আমি নিশ্চিত টুইঙ্কেলও নার্ভাস ছিল। কিন্তু তা আড়াল করেছিল। যাই হোক, গাড়ি চলছিল, এক পর্যায়ে আমি টুইঙ্কেলের হাতে হাত রাখি। প্রিমিয়ারের পর কী ঘটেছিল তা কি আপনি জানেন? আমি তার মুখে অশ্লীল ভাষা শুনেছিলাম। তার মুখে এ ধরনের গালিগালাজ শুনে হতবাক হয়ে গিয়েছিলাম। অথচ শুটিং সেটে আমি গালি দিলে বিরক্ত হতো টুইঙ্কেল।’

‘বারসাত’ সিনেমার শুটিং সেটে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেছিলেন টুইঙ্কেল। ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ববি দেওল বলেন, ‘আমরা মানালির রোটাং পাসে শুটিং করছিলাম। ওখানে অক্সিজেনের মাত্রা অনেকটাই কম ছিল। সেই জন্য টুইঙ্কেল অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলেন। আমরা ইউনিটের সবাই ভীষণ ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম।’

এখন আর অভিনয়ে নেই টুইঙ্কেল খান্না। ২০০১ সালে ‘লাভ কে লিয়ে কুচ ভি করেগা’ সিনেমায় সর্বশেষ দেখা গিয়েছে তাকে। একই বছরের শুরুতে হুট করে অক্ষয় কুমারকে বিয়ে করেন টুইঙ্কেল। এরপর থেকে সংসারে থিতু হয়েছেন। এ দম্পতির দুটি সন্তান রয়েছে। সংসার সামলানোর পাশাপাশি লেখায় মন দিয়েছেন টুইঙ্কেল খান্না।

তথ্যসূত্র: নিউজ১৮

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved priyoalo.com © 2023.
Site Customized By NewsTech.Com
x