1. imran.vusc@gmail.com : প্রিয়আলো ডেস্ক : প্রিয়আলো ডেস্ক
  2. m.editor.priyoalo@gmail.com : Farhadul Islam : Farhadul Islam
  3. priyoalo@gmail.com : প্রিয়আলো ডেস্ক :
  4. imran.vus@gmail.com : Sabana Akter : Sabana Akter
টাইব্রেকারে ‘কস্তা ম্যাজিকে’ কান্না থামলো রোনালদোর, শেষ আটে পর্তুগাল - প্রিয় আলো

টাইব্রেকারে ‘কস্তা ম্যাজিকে’ কান্না থামলো রোনালদোর, শেষ আটে পর্তুগাল

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২ জুলাই, ২০২৪
  • ৭১
Portugal 1024x576

গোলশূন্য সমতায় শেষ হয় নির্ধারিত ৯০ মিনিট। খেলা গড়ায় অতিরিক্ত আধঘণ্টায়। স্লোভানিয়ার বিপক্ষে আধিপত্য আর আক্রমণে দাপট দেখালেও ফিনিশিং দুর্বলতায় কোনোভাবেই যেন গোলের দেখা পাচ্ছিলোনা পর্তুগিজরা। তবে টাইব্রেকারের চাপ এড়িয়ে নির্ধারিত সময়েই ম্যাচ জয়ের সুর্বণ সুযোগ পেয়েছিল দলটি।

১০৫তম মিনিটে দিয়েগো জোটাকে বক্সে স্লোভানিয়ান ডিফেন্ডার দ্রোকোচিচ ফাউল করলে পেনাল্টির বাশি বাজান রেফারি। স্পটকিক নিতে যান ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। তার নিচু শট দারুণ দক্ষতায় ঠেকালেন স্লোভানিয়ার গোলরক্ষক ওবলাক। এমনভাবে সুযোগ হাতাছাড়া হতে দেখে যেন হতবাক রোনালদো।

অতিরিক্ত সময়ের খেলায় তখন বিরতি। মাঠের এক পাশে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দাঁড়িয়ে পর্তুগালের খেলোয়াড়েরা। তবে রোনালদোর ওই ‘মিস’ ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেয় কিনা, মহাতারকা থেকে খলনায়কে পরিণত হয়ে যান কিনা এ ভয়ে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো তখন শিশুর মতো কাঁদছিলেন।

ফ্রাঙ্কফুর্টে সোমবার (১ জুন) দিবাগত রাতে ২০২৪ ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের শেষ ষোলোয় খেলার শুরু থেকেই এলোমেলো আক্রমণ শানায় পর্তুগাল। প্রথম ১৫ মিনিটেই দুবার সতীর্থের ক্রস ছয় গজ বক্সে পেয়েও মাথা ছোঁয়াতে পারেননি রোনালদো। ৩২তম মিনিটে রাফায়েল লেয়াও বক্সের বাইরে ফাউলের শিকার হলে ফ্রি-কিক নেন রোনালদো, এবার বল ক্রসবার ঘেঁষে বেরিয়ে যায়। বিরতির আগে লেয়াওয়ের কাটব্যাক বক্সের বাইরে পেয়ে নিচু শট নেন জোয়াও পালিনিয়া। বল গোলরক্ষককে ফাঁকি দিলেও পোস্টে বাধা পায়।

দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য অল-আউট আক্রমণে যায় পর্তুগাল। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হচ্ছিল না। এর মধ্যে নির্ধারিত সময়ের এক মিনিট বাকি থাকতে সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি রোনালদো। এবার দিয়েগো জটার থ্রু পাস বক্সে পেয়েও গোলরক্ষক ওবলাকের বরাবর শট নেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী। অতিরিক্ত সময়ে জটা বক্সের মধ্যে ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টি পায় পর্তুগাল। তবে স্পট কিক ঝাঁপিয়ে ফেরান গোলরক্ষক।

পেনাল্টি মিস করলেও টাইব্রেকারে সবার আগে শট নিতে আসেন রোনালদো নিজেই। এবার আর মিস করেননি তিনি। পাশাপাশি জালে বল পাঠাতে সক্ষম হন তার দুই সতীর্থ বার্নান্দো সিলভা ও ব্রুনো ফার্নান্দেস। বিপরীতে পর্তুগীজ গোলরক্ষক কস্তাকে পরাস্ত করতে ব্যর্থ হয়েছেন স্লোভেনিয়ার তিন খেলোয়াড়। তিনটি অসাধারণ সেভ করেছেন কস্তা। ইউরোর ইতিহাসে প্রথম গোলরক্ষক হিসেবে তিনটি স্পটকিক ঠেকিয়ে দিয়েছেন তিনি। দারুণ নৈপুণ্যে দলকে তুলেছেন শেষ আটে।

উল্লেখ্য, শেষ আটে ফ্রান্সের মুখোমুখি হবে পর্তুগাল। আগের ম্যাচে বেলজিয়ামকে হারিয়ে শেষ আট নিশ্চিত করেছে ফরাসিরা।

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved priyoalo.com © 2023.
Site Customized By NewsTech.Com
x