1. imran.vusc@gmail.com : প্রিয়আলো ডেস্ক : প্রিয়আলো ডেস্ক
  2. m.editor.priyoalo@gmail.com : Farhadul Islam : Farhadul Islam
  3. priyoalo@gmail.com : প্রিয়আলো ডেস্ক :
  4. imran.vus@gmail.com : Sabana Akter : Sabana Akter
ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে সুপার এইটে শুভসূচনা ইংল্যান্ডের - প্রিয় আলো

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে সুপার এইটে শুভসূচনা ইংল্যান্ডের

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০২৪
  • ৫৭
England 1

শেষ সাত ওভারে দরকার ছিল ৭০। সহজেই সেই পথ পেরিয়ে গেছেন দুই ইংলিশ ব্যাটার জনি বেয়ারস্টো ও ফিল সল্ট। রীতিমতো কচুকাটা করেছেন ক্যারিবীয় বোলারদের। দু’জনের ১৫ ও ১৬ তম ওভারের তাণ্ডবে ম্যাচটা অতি সহজ হয়ে যায় ইংল্যান্ডের। এর মধ্যে ১৫ তম ওভারে ১৬ রান নেয়ার পর ১৬ তম ওভারে ৩টি ছক্কা ও ৩টি চারে ৩০ রান তুলেন সল্ট। ফলে, ১৫ বল ও ৮ উইকেট হাতে রেখেই জয় পায় ইংল্যান্ড।

শেষ দিকে এই দুটি ব্যাটারের তাণ্ডবে সহজ জয়ে সুপার এইটে শুভসূচনা করলো ইংল্যান্ড। দলের হয়ে ৪৭ বলে ৫ ছক্কা ও ৭ চারে অপরাজিত ৮৭ রানের ইনিংস খেলেন সল্ট। ২৬ বলে ৪৮ রান করে অপরাজিত ছিলেন বেয়ারস্টো।

এদিন আগে ব্যাট করে ইংল্যান্ডকে ১৮১ রানের টার্গেট দেয় ক্যারিবিয়ানরা। তবে ইংল্যান্ডকে পথ হারাতে দেননি ওপেনার ফিল সল্ট। অধিনায়ক জস বাটলার ২২ বলে ২৫ রান করে সাজঘরে ফিরলেও দায়িত্ব নিয়ে ম্যাচ শেষ করে এসেছেন সল্ট। মাঝে ১০ বলে ১৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন মঈন আলী। তবে এরপর আর কোনো আঘাত আসতে দেননি জনি বেয়ারস্টো। সল্টের সঙ্গে জুটি গড়ে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি।

টসে হেরে শুরুতে ব্যাট করতে নেমে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে দারুণ শুরু এনে দেন দুই ওপেনার ব্রান্ডন কিং ও জনসন চার্লস। কিং অবশ্য আগ্রাসী ক্রিকেট খেললেও কিছুটা খোলসে বন্ধী ছিলেন চার্লস। ১৩ বলে ২৩ রান করে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে সাজঘরে ফিরে যান কিং। এরপর দায়িত্বটা নিকোলাস পুরান নিলেও সেই গতিতে রান তুলতে পারেননি কেউই। চার্লস দলীয় ৯৪ রানে ব্যক্তিগত ৩৪ বলে ৩৮ রান করে সাজঘরে ফিরেন।

এরপর অধিনায়ক রোভম্যান পাওয়েল এসে ব্যাট হাতে চড়াও হন ইংলিশ বোলারদের ওপর। অন্যপ্রান্তে গত ম্যাচে সেঞ্চুরি মিস করা নিকোলাস পুরান এদিন যেন ধীরস্থির ক্রিকেটের দিকেই মনোযোগ দিয়েছিলেন। পাওয়েল ১৭ বলে ৩৬ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে দেওয়ার পর ৩২ বলে ৩৬ রান করে সাজঘরের পথ ধরেন পুরান। এক ওভারের ব্যবধানে দুই স্বীকৃত ব্যাটারকে হারিয়ে বেশ বড়সড় ধাক্কা খেতে হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে।

শেষদিকে সংগ্রহটাকে একটা শক্ত অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার দায়িত্ব পড়ে আন্দ্রে রাসেল ও শেরফেন রাদারফোর্ডের কাঁধে। রাসেল ২ বলে এক রানে হতাশ করে ফিরলেও দায়িত্ব নেন রাদারফোর্ড।

শেষ দিকে তার ১৫ বলে ২৮ রানের ঝড়ো ইনিংসে ভর করেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস পায় ১৮০ রানের শক্ত ভিত। ইংলিশ বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে কিপটে ছিলেন আদিল রশিদ। ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে মাত্র ২১ রান খরচায় ১ উইকেট তুলেছেন তিনি। ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হয়েছেন ওপেনার ফিল সল্ট।

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved priyoalo.com © 2023.
Site Customized By NewsTech.Com
x