1. citymelaltd@gmail.com : আবু হেনা : আবু হেনা
  2. foysalmahmudbd9@gmail.com : ফয়সাল মাহমুদ : ফয়সাল মাহমুদ
  3. imran.vusc@gmail.com : প্রিয়আলো ডেস্ক : প্রিয়আলো ডেস্ক
  4. kkomol296@gmail.com : kamrul Hossain : kamrul Hossain
  5. m.editor.priyoalo@gmail.com : Farhadul Islam : Farhadul Islam
  6. nurulimran26@gmail.com : নুরুল ইমরান : নুরুল ইমরান
  7. priyoalo@gmail.com : প্রিয়আলো ডেস্ক :
ইমরান খানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি - প্রিয় আলো

ইমরান খানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ২৮
Imran

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের নামে জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

তোশাখানা মামলার শুনানিতে বার বার নির্দেশ দেওয়ার পরও ইমরান খান আদালতে হাজির না হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার অ্যাডিশনাল সেশন জজ জাফর ইকবাল তার বিরুদ্ধে এ পরোয়ানা জারি করেন

এর আগে ডিস্ট্রিক্ট অ্যান্ড সেশন কোর্ট ইসলামাবাদে তোশাখানা মামলার শুনানিতে পিটিআই চেয়ারম্যানকে সেখানে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন বিচারক। একইসাথে অভিযোগপত্র দাখিল হলে ইমরান খান চলে যেতে পারবেন-সে কথাও জানানো হয়। কিন্তু হাজির হননি ইমরান খান। তবে ওই শুনানিতে তার আইনজীবী আলি বুখারি উপস্থিত ছিলেন। অপরপক্ষে নির্বাচন কমিশনের আইনজীবী সা’দ হাসানও আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

এদিন, একদল কর্মী-সমর্থককে নিয়ে ইসলামাবাদের জুডিশিয়াল কমপ্লেক্সের দুটি আদালতে হাজির হয়েছিলেন ইমরান খান। তবে আজ চারটি ভিন্ন মামলায় ব্যক্তিগত হাজিরা ছিল পিটিআই চেয়ারম্যানের।

ইমরান খানের নামে বেআইনি অর্থায়ন মামলা এবং সন্ত্রাসবাদ মামলার শুনানি ছিল জুডিশিয়াল কমপ্লেক্সে অবস্থিত আদালতে। আর তোশাখানা মামলা ও হত্যাচেষ্টা মামলার শুনানি ছিল এফ-৮ কাছারির দায়রা আদালতে। জুডিশিয়াল কমপ্লেক্স থেকে এফ-৮ কাছারির দূরত্ব প্রায় আধা ঘণ্টার রাস্তা।

এদিন এফ-৮ কাছারিতে অতিরিক্ত দায়রা জজ জাফর ইকবালের আদালতে তোশাখানা মামলার শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। এই মামলায় ইমরান খানের আইনজীবী আদালতকে অনুরোধ করেন, তার মক্কেলকে আজকের শুনানি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হোক। কারণ তাকে একই সময় আরও কয়েকটি আদালতে হাজির হতে হবে। এর আগে তার বিরুদ্ধে শুনানি দুবার মুলতবি করা হয়েছিল।

শুনানিতে পিটিআই’র আইনজীবী আলি বুখারি আদালতকে বলেন, তার মক্কেল জুডিশিয়াল কমপ্লেক্সের দুটি আদালতে হাজিরা দিতে রওয়ানা দিয়েছেন। তাই তিনি আজ এই আদালতে হাজির হতে পারবেন না। এ জন্য শুনানি পাঁচ দিনের জন্য মুলতবি করার আবেদন করেন বুখারি।

তবে, ইসিপির কৌঁসুলি এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করে বলেন, পিটিআই প্রধান আসলে আদালতে হাজির হতে চান না।

এসময় পিটিআই’র আইনজীবী বলেন, অন্য দুটি মামলা থেকে মুক্ত হলে তার মক্কেল বিচারিক সময়ের মধ্যে আদালতে পৌঁছাতে পারবেন।

এর প্রেক্ষিতে বিচারক বলেন, অভিযোগ গঠন অপেক্ষমান থাকায় তার এখানেও আসা উচিত। পরে আইনজীবী বলেন, খাজা হারিস এই মামলায় ইমরান খানের প্রতিনিধিত্ব করছেন এবং তিনি আজ এখানে আসতে পারবেন না।

এরপর শুনানি সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করেন বিচারক। পরে শুনানি ফের শুরু হলে তিনি ইমরান খানের নামে জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন এবং শুনানি ৭ মার্চ পর্যন্ত মুলতবি করেন।

গত বছরের এপ্রিলে ভোটে পরাজয়ের পর প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব হারানোর পরেই ইমরান খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে, বিদেশি রাষ্ট্রনেতাদের কাছ থেকে পাওয়া উপহার বেআইনি ভাবে বিক্রি করেছেন। তার মধ্যে সৌদি আরবের রাজার দেওয়া একটি ঘড়ি বিক্রি করেছেন ৩০ লক্ষ ডলারে। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্তে নামে দেশের প্রধান তদন্তকারী সংস্থা ফেডারেল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিদেশি উপহার বিক্রির অভিযোগ সত্যি বলে জানায় এফবিআই।

সূত্র : ডন।

আইকে

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved priyoalo.com © 2022.
Site Customized By NewsTech.Com
x